২০২১ সালের hsc বিএম একাদশ শ্রেণি ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা (১) ১০ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর 2021

২০২১ সালের hsc বিএম একাদশ শ্রেণি ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা (১) ১০ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর 2021 ২০২১ সালের hsc বিএম একাদশ শ্রেণি ব্যবসায় সংগঠন
Please wait 0 seconds...
Scroll Down and click on Go to Link for destination
Congrats! Link is Generated
শ্রেণি: ১১শ HSC বিএম-2021 বিষয়: ব্যবসায় সংগঠন ও ব্যবস্থাপনা (১) এসাইনমেন্টেরের উত্তর 2021
এসাইনমেন্টের ক্রমিক নংঃ 06 বিষয় কোডঃ 1817
বিভাগ: ভোকেশনাল শাখা
বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

এসাইনমেন্ট শিরোনামঃ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের ফলে রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের সমস্যা সমাধানের উপায়সমূহ নিরূপন কর

শিখনফল/বিষয়বস্তু :

  • করোনা ভাইরাসের ধারণা,
  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের ধারণা জানতে পারবো,
  • করোনা ভাইরাসের প্রভাব থেকে ব্যবসা রক্ষা করার উপায়সমূহ শিখতে পারবো,
  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের উপযুক্ত ক্ষেত্র সমূহ শিখতে পারবো,

নির্দেশনা (সংকেত/ ধাপ/ পরিধি): 

  • করোনা ভাইরাসের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে,
  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে,
  • করোনা ভাইরাসের প্রভাব থেকে ব্যবসা রক্ষা করার উপায় সমূহ লিখতে হবে,
  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের উপযুক্ত ক্ষেত্রসমূহ বর্ণনা করতে হবে,

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

  • করোনা ভাইরাসের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে,

করোনা ভাইরাস কি ? করোনা ভাইরাস অনেকগুলি ভাইরাসের একটি বড় পরিবার যা জীব জন্তু বা মানুষের অসুখের কারণ হতে পারে। বেশ কয়েকটি করোনভাইরাস মিলে মানুষের মধ্যে সাধারণ ঠাণ্ডা লাগা থেকে শুরু করে মিডিল ইষ্ট রেসপিরেটরি সিন্ড্রোম (এমইআরএস) এবং সিভিয়ার একিউট রেস্পিরেটরি সিন্ড্রোম (এসএআরএস) এর মতো মারাত্মক রোগ সৃষ্টি করতে পারে বলে জানা যায়। কোভিড -১৯ কি ? কোভিড -১৯ হল নতুন খুঁজে পাওয়া করোনাভাইরাস থেকে ছড়ানো একটি সংক্রামক রোগ। এই নতুন ভাইরাস এবং রোগটি ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহরে মহামারি হওয়ার আগে বিশ্বের কাছে অজানা ছিল।

কোভিড -১৯ এর লক্ষণগুলি কি?

কোভিড -১৯ এর সাধারণ লক্ষণগুলি হ'ল: - জ্বর - ক্লান্তি - শুকনো কাশি ইত্যাদি । -অনেকের আবার ব্যথা বেদনা, নাক বন্ধ, নাক দিয়ে পানি পরা , গলা ব্যথা বা ডায়রিয়া হতে পারে। এই লক্ষণগুলি শুরুতে কম থাকে এবং ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে । আক্রান্ত অনেকের মধ্যে মধ্যে এই রোগ এর কোনও লক্ষণ দেখা যায়না এবং তাঁরা অসুস্থও বোধ করেন না। বেশিরভাগ লোক (প্রায় ৮০ %) বিশেষ চিকিৎসার প্রয়োজন ছাড়াই সুস্থ হয়ে উঠেন । কোভিড -১৯ হওয়া প্রত্যেক ৬ জনের মধ্যে ১ জন ভীষণভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং তাঁদের শ্বাস নিতে অসুবিধা হয়। বয়স্ক ব্যক্তি এবং যাঁদের উচ্চ রক্ত চাপ, হার্টের সমস্যা বা ডায়াবেটিসের মতো অসুস্থতা রয়েছে , তাঁদের জন্য ঝুঁকিটা বেশি এবং তাঁদের ভীষণভাবে অসুস্থ হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে ।

কোভিড -১৯ কীভাবে ছড়ায়?

সাধারণত যেভাবে ছড়ায়ঃ ১। কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত রোগী থেকে এই রোগ অন্য মানুষে ছড়ায়; ২। কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত মানুষের নাক ও মুখ থেকে বেরিয়ে আসা হাঁচি কাশির মাধ্যমে ছড়িয়ে পরা ড্রপলেট (কাশি বা নিঃশ্বাস থেকে যে পানির ফোঁটা তৈরি হয় ) এর দ্বারা এই রোগ ছড়ায়; ৩। এই ড্রপলেট/পানির ফোঁটাগুলি মানুষের চারপাশের জিনিস ও জায়গার উপর লেগে থাকে; ৪। কেউ যদি এই জিনিস বা জায়গাগুলি স্পর্শ করে এবং তারপরে নিজের চোখ, নাক বা মুখে হাত দেয় তবে এই রোগে আক্রান্ত হবার ঝুঁকি বেড়ে যাবে; কোভিড -১৯ আক্রান্ত লোকের হাঁচি কাশি বা নিঃশ্বাস থেকে বের হওয়া ড্রপলেট/পানির ফোঁটা যদি অন্য কারো শরীরে ঢোকে, তাহলে কোভিড -১৯ ছড়াতে পারে। সেইজন্য অসুস্থ লোকের থেকে ৩ ফুট (১ মিটারের ) বেশি দূরে থাকা অত্যন্ত জরুরি কোভিড -১৯ এর ভাইরাসটি কি বাতাসের মাধ্যমে ছড়াতে পারে? এ পর্যন্ত হওয়া গবেষণা থেকে জানা যায় কোভিড -১৯ এর ভাইরাসটি বাতাসের মাধ্যমে ছড়ায় না। আক্রান্ত লোকের হাঁচি কাশি বা নিঃশ্বাস থেকে বের হওয়া ড্রপলেট/পানির ফোঁটা যদি নিঃশ্বাসের মাধ্যমে অন্য কারো শরীরে ঢোকে তাহলে কোভিড -১৯ ছড়াতে পারে। কোভিড -১৯ এমন কোনও ব্যক্তির থেকে ছড়াতে পারে যার কোনো লক্ষণ নেই ? কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত অনেক লোক অসুস্থ বোধ করে না। রোগ এর প্রথম দিকে এমন হতে পারে l তাই, যার কেবল অল্প কাশি আছে এবং খুব অসুস্থ বোধ করছেন না, এমন কারোর কাছ থেকেও কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত হওয়া সম্ভব l

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের ধারণা ব্যাখ্যা করতে হবে,

রাষ্ট্র কর্তৃক গঠিত বা পরবর্তী সময়ে জাতীয়করণকৃত কোনো ব্যবসায়ের মালিকানা, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ রাষ্ট্রের অধীনে থাকলে তাকে রাষ্ট্রীয় ব্যবসায় বলে।

রাষ্ট্র কর্তৃক গঠিত পরবর্তী সময়ে জাতীয়করণকৃত কোনো ব্যবসায়ের মালিকানা, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ রাষ্ট্রের অধীনে থাকলে তাকে রাষ্ট্রীয় ব্যবসায় বলে। রাষ্ট্র সক্ষম না হলে দেশের জনগণ পরাধীন ও পরমুখাপেক্ষী হতে বাধ্য। রাষ্ট্র সক্ষম হওয়ার বিষয়টি বিভিন্ন ক্ষেত্রে সরকারের যোগ্যতা ও সামর্থ্য প্রমাণের সুযোগ এবং নিয়ন্ত্রণ আরোপের সামর্থ্যের ওপর নির্ভর করে। রাষ্ট্রীয় ব্যবসায় BRTC ও বাংলাদেশ রেলওয়ে যোগাযোগব্যবস্থায়, বাংলাদেশ ব্যাংক অর্থনীতিতে এবং BRTC ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে সরকারের সক্ষমতা সৃষ্টি করে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • করোনা ভাইরাসের প্রভাব থেকে ব্যবসা রক্ষা করার উপায় সমূহ লিখতে হবে,

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যবসায়ের সমস্যা সমাধানের সম্ভাব্য উপায়

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যবসা যদি এটিকে জর্জরিত সমস্যাগুলি কাটিয়ে উঠতে না পারে তবে এটি ধীরে ধীরে বন্ধ হয়ে যাবে।
তবে, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যবসায়ের বিদ্যমান সমস্যাগুলি একটি লিখিতভাবে সমাধান করা যেতে পারে

১. দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ: দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণ কোনও পর্যায়ে বা রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যবসায়ের যে কোনও ক্ষেত্রে করা উচিত। সিদ্ধান্ত গ্রহণে বিলম্ব সংস্থার ক্ষতি করবে এবং উদ্দেশ্য ব্যাহত করবে। দ্রুত সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষেত্রে সংস্থার কাছে আমলাদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে রাখাই পরামর্শ দেওয়া হয়। অন্য কথায়, এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সংস্থার ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলকে ক্ষমতায়ন করতে হবে।

২. প্রশিক্ষণ: সংস্থার পরিচালনার দক্ষতা বাড়াতে এবং কর্মীদের উত্পাদনশীলতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণের প্রয়োজন। দুই ধরণের প্রশিক্ষণের ক্ষেত্রে প্রথমে, নির্বাহীদের জন্য এক ধরণের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা দরকার – যারা সরাসরি পরিচালনায় রয়েছেন
এর সাথে নিযুক্ত. দ্বিতীয়ত, শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ। এতে তাদের উত্পাদনশীলতা বাড়বে।

৩. জবাবদিহিতা ব্যবস্থা: এই সমস্ত সংস্থায় জবাবদিহিতা ব্যবস্থা বা অনুশীলন চালু করা উচিত।
অন্য কথায়, প্রত্যেক কর্মীকে অবশ্যই তার কাজের জন্য দায়বদ্ধ হতে হবে। এর জন্য পরিকল্পনার শুরুতে উল্লেখ করা আপনাকে কে দিতে হবে এবং কে কী করবে, আপনাকে তার কাজের জবাব দিতে হবে। তাহলে সবার জানা উচিত আপনি দেখতে পাচ্ছেন যে তাঁর কতটা দায়িত্ব রয়েছে এবং কাদের প্রতি। এটি সংগঠনের উদ্দেশ্যগুলি অর্জন করা আরও সহজ করে তুলবে।

বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল 

৪. নমনীয়তা ব্যবস্থা: পরিকল্পনা বা সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে নমনীয়তার ব্যবস্থা থাকতে হবে। কারণ যে কোনও সময় যে কোনও প্রয়োজন সিদ্ধান্ত বা পরিকল্পনা পরিবর্তন করার প্রয়োজন হতে পারে। যদি এটি পরিবর্তন না করা হয় তবে উদ্দেশ্যটি ব্যাহত হবে। তাই পরিকল্পনার জন্য নমনীয়তা প্রয়োজন।

৫) সাফল্য অর্জন: প্রতিষ্ঠানের সকল ক্ষেত্রে সাফল্য অর্জন। আপনাকে প্রচুর অর্থ ব্যয় করতে হবে।
অপ্রয়োজনীয় ব্যয় এড়াতে সাফল্য অর্জন করা উচিত। এটি তহবিলের সঙ্কট দূর করবে।

৬. দুর্নীতি প্রতিরোধ: রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে দুর্নীতি একটি বড় সমস্যা। এই সমস্যা সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত ব্যবস্থা গ্রহণযোগ্য হতে হবে। কাজের পদ্ধতি, অ্যাকাউন্টিং পদ্ধতি ইত্যাদি এমনভাবে প্রবর্তন করা উচিত যাতে ফাঁকি দেওয়ার কোনও সুযোগ নেই স্থির; তহবিল ঘুরে দেখার কোনও সুযোগ পায় না। তবে এই সমস্ত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের ‘নৈতিক বিষয়’। প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা দরকার।

৭. সুস্পষ্ট উদ্দেশ্যগুলি: রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যবসায়ের জন্য প্রথম কাজটি করা দরকার উদ্দেশ্যগুলি এবং পরিষ্কারভাবে বর্ণনা করার জন্য উদ্দেশ্যটিতে কোনও অস্পষ্টতা থাকা উচিত নয়। সংস্থাটি কী অর্জন করতে চায় সে সম্পর্কে পরিষ্কার হন দরকার অন্যথায় কাজের পরিকল্পনাটি সঠিকভাবে তৈরি করা যায় না। সুতরাং উদ্দেশ্য সম্পর্কে একটি স্পষ্ট উল্লেখ থাকতে হবে।

৮. যথাযথ পরিকল্পনা: পরিকল্পনাটি সঠিকভাবে তৈরি করতে হবে। কারণ পরিকল্পনাটি যদি ভুল হয় তবে কাজটি ভাল হবে না। তাই পরিকল্পনা তৈরির আগে সমস্যা সম্পর্কে পর্যাপ্ত তথ্য সংগ্রহ করা দরকার। তারপরে সংগ্রহ করা ডেটা বিশ্লেষণ করে একটি পরিকল্পনা প্রণয়ন করা প্রয়োজন। মনে রাখবেন যে লক্ষ্য অর্জনের একমাত্র উপায় পরিকল্পনা। সেটা ঠিক সু-পরিকল্পিত পরিকল্পনা করে এটি সংস্থার সব স্তরে পৌঁছে দেওয়া উচিত।

ফলস্বরূপ, সমস্ত কর্মচারী তার কী করতে হবে তা জানতে এবং বুঝতে পারবে। এইভাবে সংস্থার উদ্দেশ্য আরও সহজ হবে।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

  • রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের উপযুক্ত ক্ষেত্রসমূহ বর্ণনা করতে হবে,

রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়িক কলগুলির ক্ষেত্রে সমানভাবে কার্যকর নয়। কিছু বিশেষ ক্ষেত্রে রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের গঠন এবং পরিচালনা উপযুক্ত বিবেচিত হয়। রাষ্ট্রীয় ব্যবসায়ের উপযুক্ত ক্ষেত্রগুলি হাইলাইট করা হয়

১. জনকল্যাণমূলক সংস্থা ঃ সেসব শিল্প প্রতিষ্ঠান এবং ব্যবসা জনকল্যাণমূলক কাজে নিযুক্ত এবং যা
এগুলি জাতীয় জীবনে প্রয়োজনীয় এবং রাষ্ট্র দ্বারা পরিচালিত হওয়া উচিত। যেমন- জল সরবরাহ, বিদ্যুৎ
উত্পাদন এবং সরবরাহ, গ্যাড, পোস্ট এবং এর সিস্টেম ইত্যাদি উত্পাদন এবং সরবরাহ ইত্যাদি

২. জাতীয় প্রতিরক্ষা শিল্প: জাতীয় প্রতিরক্ষার জন্য বিভিন্ন অস্ত্র, সরঞ্জাম, গোলাবারুদ ইত্যাদি উত্পাদন।
মালিকানাতে হবে। কারণ, এই শিল্পগুলি যদি ব্যক্তি মালিকানাধীন হয় তবে এটির অপব্যবহার করা যেতে পারে।

বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল 

৩. আর্থিক ব্যবস্থায় জড়িত প্রতিষ্ঠানসমূহ প্রতিষ্ঠান দেশের অর্থ ও ব্যাংকিং ব্যবস্থার সাথে জড়িত প্রতিষ্ঠানসমূহ; যেমন- কেন্দ্রীয় ব্যাংক, বৈদেশিক মুদ্রা ইত্যাদির অবশ্যই রাষ্ট্রীয় নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে। অন্যথায় আর্থিক অস্থিতিশীলতা দেখা দিতে পারে।

৪. জরুরী ও জীবন সাশ্রয়ী শিল্প ঃ রাজ্যের জীবনরক্ষার এবং প্রয়োজনীয় পণ্যাদির উত্পাদন ও বিতরণ
সংগঠনটি কভার করা দরকার। যেমন- ভেষজ শিল্প, ওষুধ শিল্প, রাসায়নিক শিল্প ইত্যাদি

৫. ভ্রমণ এবং যোগাযোগ রক্ষণাবেক্ষণ প্রতিষ্ঠানসমূহ গুরুত্বপূর্ণ জনপরিবহন পরিবহন এবং যোগাযোগ রক্ষা করে এমন গুরুত্বপূর্ণ পরিবহন ব্যবস্থা রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে অবশ্যই প্রতিষ্ঠিত ও পরিচালনা করতে হবে। যেমন- রেল পরিবহন, সড়ক পরিবহন, বিমান পরিবহন ইত্যাদি সর্বোপরি, ব্যক্তিগতভাবে মালিকানাধীন গুরুত্বপূর্ণ শিল্প বা ব্যবসা একচেটিয়া ব্যবসায়ের রূপ নেয় এবং এটি সাধারণ জনগণ দ্বারা শোষণের সম্ভাবনা রয়েছে, এক্ষেত্রে এটি রাষ্ট্রের মালিকানাধীন হওয়া উচিত।

[ বি:দ্র: নমুনা উত্তর দাতা: রাকিব হোসেন সজল ©সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত (বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস)]

সবার আগে Assignment আপডেট পেতে Follower ক্লিক করুন

এসাইনমেন্ট সম্পর্কে প্রশ্ন ও মতামত জানাতে পারেন আমাদের কে Google News <>YouTube : Like Page ইমেল : assignment@banglanewsexpress.com

অন্য সকল ক্লাস এর অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর সমূহ :-

  • ২০২১ সালের SSC / দাখিলা পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২১ সালের HSC / আলিম পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ভোকেশনাল: ৯ম/১০ শ্রেণি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ভোকেশনাল ও দাখিল (১০ম শ্রেণির) অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • HSC (বিএম-ভোকে- ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স) ১১শ ও ১২শ শ্রেণির অ্যাসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১০ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের SSC ও দাখিল এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক
  • ২০২২ সালের ১১ম -১২ম শ্রেণীর পরীক্ষার্থীদের HSC ও Alim এসাইনমেন্ট উত্তর লিংক

৬ষ্ঠ শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৭ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ ,

৮ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১ , ৯ম শ্রেণীর এ্যাসাইনমেন্ট উত্তর ২০২১

বাংলা নিউজ এক্সপ্রেস// https://www.banglanewsexpress.com/

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় SSC এসাইনমেন্ট :

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় HSC এসাইনমেন্ট :

Post a Comment

আমাদের সাথে থাকুন
Cookie Consent
We serve cookies on this site to analyze traffic, remember your preferences, and optimize your experience.
Oops!
It seems there is something wrong with your internet connection. Please connect to the internet and start browsing again.
Site is Blocked
Sorry! This site is not available in your country.